বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মালিখালী ইউপি চেয়ারম্যান সুমন মন্ডল মিঠুর বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন পিরোজপুরে শীতার্তদের মাঝে জেলা প্রশাসকের শীতবস্ত্র বিতরণ মোড়েলগঞ্জ রাতের আঁধারে পুকুরে বিষপ্রয়োগে মাছ নিধন পিরোজপুরের পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার মাঝি হলেন হাবিবুর রহমান মালেক আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী ও দলীয় নেতাদের সম্পর্কে মিথ্যাচার : প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে পিরোজপুরে সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দের র‌্যালী ও আলোচনা পিরোজপুরে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালিত মঠবাড়িয়ায় সোবাহান পেয়দা হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন: দুই আসামি গ্রেপ্তার পিরোজপুরে মেয়রের সমর্থনে ৬নং ওয়ার্ডে মতবিনিময় সভা পিরোজপুর মুক্ত দিবস উপলক্ষে প্রেসক্লাবের আয়োজনে স্মৃতিচারণমূলক আড্ডা অনুষ্ঠিত

প্রথম স্ত্রীর যৌতুক মামলায় ওয়ারেন্ট নিয়ে প্রকাশ্যে পিরোজপুর জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৩৫ Time View

প্রথম স্ত্রীর করা যৌতুক ও নির্যাতন মামলায় গ্রেপ্তারী পরোয়ানা নিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে পিরোজপুর জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক এম ডি বদিউজ্জামান শেখ রুবেল । এতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে মামলার বাদী তার প্রথম স্ত্রী ও তার পরিবারের লোক জন বলে দাবী করেছে তার স্ত্রী। রুবেলের ১ম স্ত্রী শেখ সাজিয়া আফরিন শাম্মী জানান, ২০১২ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারী পারিবারিক অনুষ্ঠানের মাধ্যেমেই তার সাথে বর্তমান জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক এম ডি বদিউজ্জামান শেখ রুবেলের বিবাহ হয়। বর্তমানে তাদের সংসারে দেড় বছর বয়সী একটি পুত্র আছে। বিয়ের পর থেকেই যৌতুক হিসেবে বিভিন্ন সময় নগদ টাকা, আসবারপত্র ও মোটরসাইকেল তার স্বামীকে দিয়েছে তার পরিবারের লোকজন। কিন্তু বেশ কিছুদিন যাবত ধরে তার স্বামী এম ডি বদিউজ্জামান শেখ রুবেল ও তার মা জাকিয়া বেগম তার উপর ২৫ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করে তার উপর নানা চাপ দিতে থাকে। যৌতুকের জন্য টাকা না দিতে পারায় তাকে বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন শুরু করে তারা। এই নির্যাতনের পরে যৌতুকের জন্য তাকে তার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় স্বামী ও শ^াশুরী।
পরে এ বিষয়ে পারিবারিক ভাবে সমযোতার চেষ্টা করলেও তার স্বামী ও শ^শুরবাড়ীর লোকজন সেটা না মেনে নেওয়া এ বছরের ১৫ জুলাই তিনি নিজে বাদী হয়ে খুলনা আদলতে তার স্বামী ও শ^াশুরীকে আসামী করে যৌতুক ও নির্যাতন মামলা দায়ের করেন।
শেখ সাজিয়া আফরিন শাম্মী আরো জানান, তিনি পরে জানাতে পারেন তার স্বামী এম ডি বদিউজ্জামান শেখ রুবেল তিনি স্ত্রী থাকা অবস্থায় অধিক যৌতুকের লোভে এ বছরের শুরুর দিকে তার অনুমতি না নিয়ে যশোর এলাকার একটি মেয়েকে বিয়ে করেছেন। জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার করনে এ বিষয়ে কিছু বলতে গেলে তিনি সহ তার বাবার পরিবারের লোকজনকে রুবেল নানা ভাবে হুমকি দিতো।

এর আড়গ এই মামলায় গত ২৪ সেপ্টেম্বর হুলারহাট লঞ্চঘাট থেকে পুলিশ পিরোজপুর জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক এম ডি বদিউজ্জামান শেখ রুবেল কে গ্রেপ্তার করে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com